স্বপ্ন-বিকাশ


স্বপ্ন-বিকাশ

NEWS


view:  full / summary

৫ হাজার মিটারের বেশি গভীরেও সফল চীনা সাবমে&#2

Posted by ahkanak on July 26, 2011 at 11:58 AM Comments comments (0)

২৬ জুলাই: চীনের একটি মিনি-সাবমেরিন তিন নাবিক নিয়ে পাঁচ হাজার মিটারের বেশি গভীরে অভিযান চালিয়ে সফল হয়েছে।

 

চীনা উপকথার কল্পিত সাগর ড্রাগনের নামে নাম করণ করা জিয়ায়োলোং নামের এ মিনি-সাবমেরিনটি আজ প্রশান্ত মহাসাগরের পাঁচ হাজার ৫৭ মিটার গভীরে অভিযান চালায়।

 

চীনের ওসেনিক অ্যাডমিনিস্ট্রেশন আগামী বছর সাত হাজার মিটার গভীরে পৌঁছানোর চেষ্টা করবে বলে ঘোষণা করেছে।

 

জিয়ায়োলোং সম্পর্কে এক নাবিক বলেন, সাগর তলের খনিজ অনুসন্ধানের লক্ষ্যে ২০০২ সালে বানানো জিয়ায়োলোং প্রতি বর্গ মিটারে পাঁচ হাজার টন সমপরিমাণ চাপ সহ্য করতে পারে। আমরা খুব শিগগিরই এটা নিয়ে সাত হাজার মিটার গভীরে পৌঁছানোর চেষ্টা করব।

প্রসঙ্গত: জাপানের শিনকাই সাবমেরিন ১৯৮৯ সালে সাড়ে ছয় হাজার মিটার গভীরে অভিযান চালিয়েছিল। চীন অবশ্য এখনো সে রেকর্ড স্পর্শ করতে পারেনি। তবে চীনের জিয়ায়োলোং ডুবোজাহাজটি সাত হাজার মিটার গভীরে পৌঁছানোর মতো ক্ষমতাসম্পন্ন করে বানানো হয়েছে বলে বেইজিং'এর পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে।

 

আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রকে বিশ্বাস করে না- খালে&#2

Posted by ahkanak on July 13, 2011 at 9:44 AM Comments comments (0)

সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার গণতন্ত্রকে নিজের হাতে হত্যা করেছে।

 

তারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না বলেই বিরোধী দলের নানা কর্মসূচিতে বাঁধা সৃষ্টি করছে।

 

খালেদা জিয়া বলেন, আওয়ামী লীগকে বিশ্বাস করা যায় না। তারা বলেছিল বিরোধী দলে গেলে হরতাল দেবে না। কিন্তু তারা একের পর এক হরতাল দিয়েছে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ দেশ ও জাতির কাছে জাতীয় বেঈমান। তাই আওয়ামী লীগের কাছে দেশ ও জাতি নিরাপদ নয়।

এর আগে দুপুরে খালেদা জিয়া গণঅনশনে অংশ নিতে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে আসেন।

 

আজ বুধবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে ৮ ঘণ্টা গণঅনশন শেষে তিনি এ কথা বলেন।

বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ

Posted by ahkanak on July 13, 2011 at 9:39 AM Comments comments (0)

চিকিৎসা সেবাকে আরো এক ধাপ এগিয়ে নিতে ঢাকা মেডিকেল কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তরের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

 

ডিএমসি অ্যালামনাই ট্রাস্টের আয়োজনে বুধবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজের ৬৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এ কথা জানান।

 

আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর স্বাস্থ্য উপদেষ্টার সঙ্গে কথা বলে আমরা বিশ্ববিদ্যালয় তৈরির ব্যাপারে একমত হয়েছি। যত দ্রুত সম্ভব এ ঐতিহ্যবাহী মেডিক্যাল কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তরের কাজ শুরু করা হবে।অর্থমন্ত্রী বলেন, দেশের সেরা চিকিৎসক তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন সঙ্কট ও আন্দোলনে এই মেডিকেল কলেজের বিশেষ ভূমিকার কথা জাতি তা কখনোই ভুলবে না।

 

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী ডা. আ ফ ম রুহুল হক বলেন, আমি ঢাকা মেডিকেল কলেজের একজন ছাত্র হিসেবে গর্বিত। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত করার ব্যাপারে আমরা পদক্ষপ নেব।

তবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়কে কেন্দ্রীয় ভূমিকায় রাখা হবে।

 

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে ইন্টারনেটে সহজেই চিকিৎসা বিষয়ক বই পাওয়া যায়। তাই ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে ডিজিটাল লাইব্রেরি স্থাপনে আমরা সহযোগিতা করব।

 

এ সময় তিনি চিকিৎসকদের আর্ত মানবতার সেবায় আরো নিবেদিত হওয়ার আহ্বান জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের জনগণের টাকায় পড়াশোনা করে চিকিৎসক হওয়ার পর কমিশন বাণিজ্য ও নৈতিকতার অবক্ষয় ঘটে এমন দিকে যাবেন না।

 

আওয়ামীলীগই ইসলামের মূলে আঘাত করে

Posted by ahkanak on July 13, 2011 at 9:34 AM Comments comments (2)

জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদের অন্যতম সদস্য ও সিলেট মহানগর শাখার আমীর এডভোকেট জুবায়ের বলেছেন, আওয়ামীলীগ যতবার দেশ পরিচালনার সুযোগ পেয়েছে ততবার ইসলাম ও মুসলিম জাতিসত্ত্বার উপর আঘাত করেছে।

স্বাধীনতার পর ৭২ সালে ক্ষমতায় এসে একদলীয় বাকশালী স্বৈরশাসন কায়েমের মাধ্যমে ইসলামের অবিচ্ছেদ্য অংশ ইসলামী রাজনীতি নিষিদ্ধ করেছিল। দীর্ঘ ২১ বছর পর ১৯৯৬ সালে ক্ষমাতায় এসে আবার সর্বজন শ্রদ্ধেয় আলেম শায়খুল হাদীস আল্লামা আজিজুল হকের মত বরেণ্য আলেমকে মিথ্যা হয়রানীমূলক হত্যা মামলার আসামী করে রিমান্ড দিয়েছিল। সেদিন তাদের অনুগত বাহিনীর দ্বারা জাতীয় মসজিদ বায়তুল মুকারমে নামাজরত মুসল্লিরা লাঞ্ছিত হয়েছিলেন তৎকালীন খতীব কেও তারা বিভিন্ন ভাবে নাজেহাল করেছিল। আর আজকে আবার সংসদে সংখ্যা গরিষ্টতার সুযোগ নিয়ে জাতির সনদ জাতীয় সংবিধানের শিরোনাম থেকে মহান আল্লাহ তায়ালার উপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাসকে তারা বাদ দিয়েছেন। দেশের সকল বরেণ্য উলামায়ে কেরামদের উপর যে ধরনের জুলুম নির্যাতন পরিচালনা করছেন তা জাতি প্রত্যক্ষ করছে। গত ১০ জুলাই হরতাল আহবানকারী ইসলামী দলসমূহের নীরিহ নেতা কর্মীদের উপর পরিকল্পিতভাবে প্রশাসনের নাকের ডগায় সরকার দলীয় সন্ত্রাসীরা যে ধরনের জঘন্যতম বর্বর নির্যাতন চালিয়েছেন তা নজির বিহীন। সম্মানিত উলামায়ে কেরামদের মধ্যে কাউকে গৃহবন্দী, কাউকে কারাবন্দী আবর কাউকে নজরবন্দী করে তারা আলেম সমাজের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। ধর্মহীন শিক্ষনীতিও নারীনীতি প্রবর্তনের মাধ্যমে দেশ থেকে পরিকল্পিত ভাবে ইসলাম বিদায়ের আয়োজন সম্পন্ন করেছেন। এখন আবার ইসলামীরাজনীতি বন্দের ধান্দায় আছেন বলে শোনা যাচ্ছে। তাই এই ইসলাম ও মুসলিম বিদ্বেষী শক্তির কবল থেকে দেশকে বাঁচাতে সকল সম্মিলিতভাবে এগিয়ে আসতে হবে। তিনি গতকাল মহানগর জামায়াত কর্তৃক আয়োজিত কেন্দ্র ঘোষিত বিক্ষোভ সমাবেশ কর্মসূচি পালনকালে তিনি সভাপতির বক্তব্য রাখছিলেন। গতকাল মঙ্গলবার বাদ আসর নগরীর উত্তর জিন্দাবাজারে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মহানগরী সেক্রেটারী সিরাজুল ইসলাম শাহীনের পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন নগর নায়েবে আমীর ডা: সায়েফ আহমদ, সহকারী সেক্রেটারী মুহাম্মদ ফখরুল ইসলাম, মাওলানা সোহেল আহমদ, জামায়াত নেতা হাফিজ আব্দুল হাই হারুন, এডভোকেট জিয়াউদ্দিন নাদের, মাওলানা আলীহায়দার, মাওলানা আব্দুল মুকিত, মোহাম্মদ আব্দুশ শাকুর,  জাহেদুর রহমান চৌধুরী, আব্দুল্লাহ আল মুনীম, মাওলানা মুজিবুর রহামন ও ছাত্রনেতা মাহমুদুর রহমান দেলোয়ার প্রমুখ।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী হরতালে আল্লাহকে খুজে পাওয়ার প্রসঙ্গে যে বালখিল্য মন্তব্য করেছেন তা জাতির সাথে তামাশার শামিল। একটি মুসলিম সংখ্যা গরিষ্ট দেশের প্রধানমন্ত্রীর মুখে আল্লাহ সম্পর্কে এ ধরনের তীর্সক মন্তব্য শুধু বেমানানইনয় রীতিমত ধৃষ্টতার নামান্তর।

দেশে অসংখ্য নাগরিক সমস্যা বিদ্যমান থাকা সত্ত্বেও সেদিকে নজর না দিয়ে বিরোধী মতকে দমন পীড়নের যে মহোৎসব শুরু করেছেন তা দেশের সমৃদ্ধি ও উন্নতির জন্য পরিচায়ক নয় দেশ প্রেমিক খোদাভীরু নেতৃত্বকে বন্দীখানায় রেখে সুখী  সম্মৃদ্ধ দেশ ও জাতি গঠন সম্ভব নয়। তাই আমীরে  জামায়াত মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীসহ সকল রাজবন্দীকে অবিলম্বে মুক্তি দিয়ে দেশকে বিশ্বের মানচিত্রে  উন্নয়শীল মর্যাদাবান একটি রাষ্ট্র গঠনে সহায়ক ভূমিকা রাখার সুযোগ প্রদানের জন্য আমরা সরকারের নিকট জোর দাবী  জানাচ্ছি। 

শিক্ষামন্ত্রীর লাগামহীন বক্তব্য

Posted by ahkanak on July 12, 2011 at 7:57 AM Comments comments (0)

 

আজ মঙ্গলবার চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের স্মরণে আবু তোরাব উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত শোক সভায় শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, নিহত শিক্ষার্থীদের পরিবারের সদস্যদের চাকরি দেবে সরকার।

 

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষার্থীদের অকাল মৃত্যুতে যে ক্ষতি হয়েছে তা কিছুতেই পূরণ হবার নয়। তবে নিহতের পরিবারের সদস্যদের সর্বোচ্চ সহায়তা করবে সরকার। তিনি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে নিহত প্রতি ছাত্রের পরিবারকে নগদ ২৫ হাজার এবং আহতদের পরিবারকে ৫ হাজার টাকা সাহায্য দেয়ার ঘোষণা দেন। একই সঙ্গে যে পরিবারে চাকরিযোগ্য সদস্য থাকবে তাদের চাকরি দেয়া হবে বলেও আশ্বাস দেন তিনি। তিনি ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সহযোগিতায় বিত্তশালীদের এগিয়ে আসার আহবান জানান।

 

উল্লেক্ষ্য, বর্তমান সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারে প্রতি পরিবারের এক জন সদস্যকে চাকরি দেয়ার প্রতিশ্রুতি থাকলও সরকার ক্ষমতায় আসার পর আর বাস্তবায়ন হয়নি।

 

শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য আওয়ামী ইশতেহারের মতই; তিনি বলেছেন, ক্ষতিগ্রস্ত যে পরিবারে চাকরিযোগ্য সদস্য থাকবে তাদের চাকরি দেয়া হবে। তহলে যে পরিবারে চাকরিযোগ্য সদস্য নেই তাদের কি হবে?

 

এখন কেউ আর এধরনের কথা বিশ্বাস করে না। এসব কথা বলে জনগণকে বিভ্রান্তিতে না ফেলে বাস্তবায়ন করে দেখান। জনগন আপনাদের কথার বাস্তবায়ন চায়।

 

ডিজটাল বাংলাদেশ গড়া ও প্রতি পরিবারের এক জন সদস্যকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে বর্তমান সরকার তরুণদের সাথে প্রতারনা করেছেন। সরকারের কথায় তরুণরা হতাশাগ্রস্থ্য।

 

 

পবিত্র শব-ই-বরাতের সরকারি ছুটি ১৮ জুলাই

Posted by ahkanak on July 11, 2011 at 9:22 AM Comments comments (0)

২ জুলাই ২০১১ তারিখে অনুষ্ঠিত জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে পবিত্র ‘শব-ই-বরাত’ ১৭ জুলাই দিবাগত রাতে পালিত হবে বিধায় পূর্ব নির্ধারিত ছুটির তারিখ ১৭ জুলাই এর পরিবর্তে ১৮ জুলাই, ২০১১ সোমবার সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

 

যে সকল অফিসের সময়সূচি ও ছুটি তাদের নিজস্ব আইন-কানুন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়ে থাকে অথবা যে সকল অফিস, সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানের চাকুরী সরকার কর্তৃক অত্যাবশ্যক চাকুরী (Essential Service) হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে, সে ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট অফিস, সংস্থা ও প্রতিষ্ঠান নিজস্ব আইন-কানুন অনুযায়ী জনস্বার্থে বিবেচনা করে এ ছুটি ঘোষণা করবে।

আগামী কাল বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস

Posted by ahkanak on July 10, 2011 at 8:41 AM Comments comments (0)

বিশ্বের অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশেও এ বছর বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যদিয়ে ‘বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস’ উদ্যাপিত হচ্ছে। এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য ‘The World at 7 Billion’, যা বাংলায় রূপান্তর করা হয়েছে ‘৭০০ কোটি মানুষের বিশ্বে পরিকল্পিত পরিবার, দেশ গড়ার অঙ্গীকার’। আমাদের দেশের বর্তমান আর্থসামাজিক প্রেক্ষাপটে প্রতিপাদ্যটি অত্যন্ত সময়োপযোগী।

 

দিবসটি উদজাপনে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতি পৃথক বাণীতে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস ২০১১ উপলক্ষে  গৃহীত সকল কর্মসূচির সাফল্য কামনা করেণ।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার দেশের জনসংখ্যাকে জনসম্পদে পরিণত করতে শিক্ষা, প্রজনন-স্বাস্থ্যসেবা ও সামাজিক নিরাপত্তা খাতে বিভিন্নমুখী কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে।   

সারাদেশে প্রায় ১১ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন করা হয়েছে। পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের মাঠকর্মীগণ প্রতি মাসে ৩০ হাজার স্যাটেলাইট ক্লিনিক সংগঠন এবং ঘরে ঘরে গিয়ে পরিবার পরিকল্পনা এবং মা ও শিশুস্বাস্থ্য বিষয়ে সেবা ও পরামর্শ দিচ্ছেন।

জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের জন্য দেশের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে অজ্ঞতা ও কুসংস্কারমুক্ত করে তাঁদের স্বাস্থ্য ও প্রজনন সেবা কার্যক্রমকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য সরকারের পাশাপাশি সকল বেসরকারি সংগঠন, গণমাধ্যম, সচেতন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে আরও নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সঙ্গে এগিয়ে আসার আহবান জানাই।

 

রাষ্ট্রপতি জানান, আয়তনের তুলনায় বাংলাদেশে জনসংখ্যা ক্রমাগত বেড়ে চলেছে। জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার সীমিত রাখতে পরিকল্পিত পরিবার গঠন অত্যন্ত জরুরি। মূলত পরিকল্পিত পরিবার গড়ার অধিকার প্রতিটি দম্পতির মৌলিক অধিকার। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ফোরামেও এ অধিকার সংরক্ষণের জন্য বিশেষ গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। কিন্তু প্রয়োজনীয় সেবা-সুবিধার অভাবে বিশ্বের প্রায় ২২ কোটি দম্পতি এ অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। বাংলাদেশেও প্রায় ১৮ শতাংশ দম্পতির পরিবার পরিকল্পনার চাহিদা থাকা সত্ত্বেও তারা সেবা প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন বলে আমি জানতে পেরেছি। এজন্য দেশের প্রতিটি দম্পতির কাছে চাহিদা অনুযায়ী পরিবার পরিকল্পনা এবং মা ও শিশুস্বাস্থ্য তথ্য ও সেবা পৌঁছে দিতে হবে। কারণ দেশকে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নেয়ার জন্য দেশের জনসংখ্যাকে সীমিত রাখা অত্যন্ত জরুরি।

 

দারিদ্র্যের সাথে জনসংখ্যা বৃদ্ধির একটা ধনাত্মক সম্পর্ক রয়েছে। তাই জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার রোধে দারিদ্র্য বিমোচনসহ শিক্ষা ও কর্মসংস্থানের সুযোগ বাড়াতে হবে। পরিবার পরিকল্পনা কার্যক্রমকে পরিপূর্ণ সাফল্যমণ্ডিত করতে সরকারের পাশাপাশি বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা, ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে আরো সক্রিয় ও আন্তরিকতার সাথে এগিয়ে আসার আহবান জানাই।

ছাত্রলীগের অপকর্মের ছাড় দেয়া হবে না- হাসিন&#2

Posted by ahkanak on July 10, 2011 at 8:39 AM Comments comments (0)

ছাত্রলীগের কারো অপকর্মের কারণে আওয়ামী লীগের সুনাম ক্ষুণ্ন হলে কোন ছাড় দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রীশেখ হাসিনা।

আজ রোববার সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ছাত্রলীগের ২৭তম জাতীয় সম্মেলন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেয়া ভাষণে তিনি এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা ছাত্রলীগকে ত্যাগের মহিমায় এগিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, এখন থেকে নিয়মিত কাউন্সিল করতে হবে। এ সংগঠন থেকেই আগামী দিনে দেশ পরিচালনায় মেধাবী নেতৃত্ব তুলে আনতে হবে।

নিউজিল্যান্ডে সমুদ্র তলদেশে ভূমিকম্প

Posted by ahkanak on July 7, 2011 at 6:34 AM Comments comments (0)

বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে নিউজিল্যান্ডের দ্বীপের কাছাকাছি সমুদ্র তলদেশে ৭.৬ মাত্রার শক্তিশালী ভূকম্পন আঘাত হেনেছে।

ভূকম্পন অনুভূত হবার পর প্যাসিফিক সুনামি ওয়ার্নিং সেন্টার ওই অঞ্চলে সুনামি সতর্কতা জারি করেছে। এর ফলে ওই অঞ্চলে সুনামির আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

স্থানীয় আবহাওয়া দফতর প্রাথমিকভাবে রিখটারস্কেলে ভূকম্পনের মাত্রা ৭.৬ বলে জানালেও মার্কিন জিওলজিকেল সার্ভের মতে, এর মাত্রা ছিলো ৭.৮। পরে রিখটারস্কেলে এর মাত্রা ৭.৬ বলেই মেনে নেয়া হয়।

সংস্থাটির মতে, ভূ-কম্পনের উৎপত্তিস্থল ছিলো প্যাসিফিক সিবেডের ২০ কিলোমিটার গভীরে বলে জানানো হয়।

নিউজিল্যান্ড সিভিল ডিফেন্স কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এ ভূকম্পনের ফলে উপকূলীয় অঞ্চলে ১ মিটার উচ্চতার বিধ্বংসী ঢেউ আঘাত হানার কথা থাকলেও বিস্ময়করভাবে তা হয়নি। বরং নিউজিল্যান্ড উপকূল শান্ত রয়েছে।

 

ইরানকে ঠেকাতে সৌদিতে জার্মানির ট্যাঙ্ক

Posted by ahkanak on July 7, 2011 at 6:32 AM Comments comments (0)

সৌদি আরবের কাছে দুইশটি অত্যাধুনিক লেপার্ড ট্যাঙ্ক বিক্রির চঘটনা নিয়ে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছে জার্মান সরকার৷ এ বিষয়ে জার্মান সরকারের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি। এ নিয়ে বুধবার জার্মান সংসদে বিরোধী দলের নেতৃবৃন্দ সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন৷

 

উল্লেখ্য, সৌদি সরকারের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে যে, জার্মান সরকারের সঙ্গে তাদের দুইশটি অত্যাধুনিক লেপার্ড ট্যাঙ্ক কেনার চুক্তি হয়েছে৷ বিরোধী দলগুলো বলছে, কয়েক মাস আগে বাহরাইনের গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে দমাতে সেনা পাঠিয়েছিল সৌদি আরব৷ তবে জোট সরকারের অন্যতম মুখপাত্র রোল্ফ ম্যুটজেনিশ এই চুক্তির পক্ষের যুক্তি হিসেবে বলেছেন, মধ্যপ্রাচ্যে ইরানকে ঠেকানোর জন্য অন্যতম কৌশলগত অংশীদার হচ্ছে সৌদি আরব৷

 


Rss_feed

Facebook Like Button

Share on Facebook

Share on Facebook

Google +1 Button

ShopnoBikash

Recent Video Blogs

No video yet.

Recent Videos

407 views - 0 comments
493 views - 0 comments

Subscribe To Our Site

Send to a friend

Follow me on Twitter

Webs Counter